ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন সময় লাগে

ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন সময় লাগে - বর্তমানে এই ডিজিটাল যুগে ই-পাসপোর্ট তৈরি করা হচ্ছে যার মাধ্যমে আমরা সম্পূর্ণ কোন ভয় ছাড়াই বিদেশে বিভিন্ন দেশে বা বিশেষ কোনো কারণে ভ্রমণ করতে পারি। তাই আমরা আজ এই ব্যবহারকারী ই-পাসপোর্ট সম্পর্কে জানবো। এই ই-পাসপোর্টের মেয়াদ কত দিন, পেতে কত দিন সময় লাগে, আমরা কতদিন ব্যবহার করতে পারব এবং কী ধরনের বিষয় তা আজ এই পোস্টের মাধ্যমে বিস্তারিত আলোচনা করব।

ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন সময় লাগে
ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন সময় লাগে 

বর্তমানে আমাদের কাছে এই ই-পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য তিন ধরনের ডেলিভারির ব্যবস্থা রয়েছে। ই-পাসপোর্ট তিন ধরনের।  আমরা আজ এই আর্টিকেলের মাধ্যমে তা জানব। এবং এই তিন ধরনের ই-পাসপোর্টের মধ্যে কোনটি 5 বছর এবং 48 পৃষ্ঠার এবং 48 পৃষ্ঠার জন্য 10 বছর বৈধ সে সম্পর্কে আমরা ধারাবাহিকভাবে আপনার কাছে সকল তথ্য উপস্থাপন করব।

আশা করি সম্পুর্ণ আর্টিকেলগুলো পড়লে সব নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবেন। তাই আপনাকে ই-পাসপোর্ট পেতে বা দ্রুত পেতে আবেদন সহ সকল কাজ সঠিকভাবে করতে হবে।

5 বছরের মেয়াদ সহ  48 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন লাগে

প্রথমত, আপনি দেখতে পাবেন যে 5 বছরের মেয়াদ সহ 48 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে আপনাকে 7500 টাকা এবং ইমার্জেন্সি পাসপোর্ট পেতে 5500 টাকা দিতে হবে। এবং সাধারণত আপনি যদি 15 দিনের মধ্যে ই-পাসপোর্ট পেতে চান তবে আপনাকে 3500 টাকা দিতে হবে। 

জরুরী ই-পাসপোর্ট ডেলিভারি যেটিতে বিনামূল্যে এবং আপনিও জানতে পারবেন কত দ্রুত এই পাসপোর্টগুলি পাওয়া যাবে৷ 5 বছর এবং 10 বছরের মেয়াদ ই-পাসপোর্ট আলাদা।

10 বছরের মেয়াদ সহ 48 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন লাগে

আপনি যদি 15 দিনের মধ্যে 10 বছরের মেয়াদ সহ 48 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে চান তবে আপনাকে বিনামূল্যে 5000 টাকা দিতে হবে। এছাড়াও আপনি যদি এই ই-পাসপোর্টটি 7 দিনের মধ্যে পেতে চান তবে আপনাকে 7000 টাকা দিতে হবে। এবং আপনাকে ইমার্জেন্সি পাসপোর্ট ফি 9000 টাকা দিতে হবে, আপনাকে ফি সহ 15% ভ্যাট জমা দিতে হবে।

এখন আপনি যদি মনে করেন আপনি একটি 64 পৃষ্ঠার 10 বছরের পূর্ণাঙ্গ পাসপোর্ট তৈরি করবেন তবে আপনি অবশ্যই এমন একটি পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন যাতে আপনাকে আলাদা ফি দিতে হবে।

10 বছরের মেয়াদ সহ 64 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন লাগে

আপনি যদি 15 দিনের মধ্যে 10 বছরের 64 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে চান তবে আপনাকে 5,000 টাকা দিতে হবে এবং 5 বছরের 48 পৃষ্ঠার পাসপোর্ট পেতে আপনাকে 7,500 টাকা দিতে হবে। তাই 15 দিনের মধ্যে 10 বছরের মেয়াদ সহ 64 পৃষ্ঠার সাধারণ পাসপোর্ট পেতে আপনাকে 7000 টাকা দিতে হবে।

এছাড়াও, জরুরি প্রয়োজনে 64 পৃষ্ঠার ই-পাসপোর্ট পেতে আপনাকে 9 হাজার টাকা দিতে হবে। আপনারা আজকে জানলেন কিভাবে ২ দিন, ৭ দিন, ১৫ দিনে ই-পাসপোর্ট পাওয়া যায়।

শেষ কথা 

ই-পাসপোর্ট পেতে কত দিন সময় লাগে- তা নিয়ে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন। কেউ না বুঝে থাকলে কমেন্ট বক্সে জানাবেন। এরকম আরও তথ্য জানতে আমাদের সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ। 
Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url