ওহমের সূত্র কাকে বলে | ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা

ওহমের সূত্র কাকে বলে – আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠকবৃন্দ, কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব ওহমের সূত্র কাকে বলে এবং ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা। নিচে ওহমের সূত্র কাকে বলে শেয়ার করা হল।

ওহমের সূত্র কাকে বলে

মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, অনার্স ও মাস্টার্স শিক্ষার্থীদের পদার্থ বিজ্ঞানে ওহমের সূত্র কাকে বলে এবং এর সীমাবদ্ধতা জানার প্রয়োজন পড়ে। তাই শিক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য ওহমের সূত্র কাকে বলে এবং ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা নিয়ে আজকের পোস্টে আলোচনা করব। তো চলুন শুরু করা যাক। 

ওহমের সূত্র (Ohm’s Law)

যারা বিজ্ঞান পড়েছেন তারা মোটামুটি সবাই ওহম এর সূত্রের সাথে পরিচিত। জার্মান বিজ্ঞানী ও গণিতবিদ জর্জ ওহম পরিবাহকের বিভব ও তড়িৎ প্রবাহের মধ্যে এ সম্পর্ক প্রদান করেন। তার নামানুসারে একে ওহমের সূত্র বলা হয়। 

সূত্রটি নিম্নরূপঃ

কোন পরিবাহীর মধ্য দিয়ে সুষম উষ্ণতায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহীর দুপ্রান্তের ভোল্টেজের সমানুপাতিক।

অথবা,

কোন পরিবাহির ভিতর দিয়ে স্থির তাপমাত্রায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহির দুপ্রান্তের বিভব পার্থক্যের  সমানপাতিক এবং রেজিস্ট্যান্সের বাস্তানুপাতিক।

ওহমের সূত্র মতে, কোন পরিবাহীর দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য V এবং প্রবাহিত কারেন্ট I হলে,

V α I

বা, V = IR         এখানে, R = পরিবাহীর রেজিস্ট্যান্স (সমানুপাতিক ধ্রুবক)

ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা:

ওহমের সূত্রকে যদিও ইলেকট্রিসিটির গুরু বলে মানা হয়, এর কিছু সীমাবদ্ধতা আছে

১. ওহমের সূত্র DC এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, AC এর ক্ষেত্রে নয়।

২. তাপমাত্রা পরিবর্তন হলে ওহমের সূত্র প্রযোজ্য নয়।

৩. তাপমাত্রা স্থির থাকলেও সিলিকন কার্বাইডের ক্ষেত্রে ওহমের সূত্র প্রযোজ্য নয়।

৪. জটিল সার্কিট সমূহ ওহমের সূত্রের সাহায্যে সমাধান করা যায় না।

শেষ কথা 

আজকের পোস্টে ওহমের সূত্র কাকে বলে এবং ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

Visited 1 times, 1 visit(s) today